অপরাধ

কুষ্টিয়ার হত্যা মামলার আসামিরা জামিনে বাড়ি ফেরার পর প্রতিপক্ষের হামলারয় ৪ জন আহত

  admin2 ২০ আগস্ট ২০২২ , ১০:১৩:০৫ 122

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে হত্যা মামলার আসামিরা জামিনে বাড়ি ফেরার পর প্রতিপক্ষের হামলায় উভয়পক্ষের ৪ জন আহত হয়েছেন।

শনিবার সকাল ৭ টার দিকে সদকী ইউনিয়নের সদকী চরপাড়া গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সংশ্লিষ্টরা জানায়, চলতি মাসের ১ তারিখে সেলিম হোসেন নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এই ঘটনায় সেলিমের ছোট ভাই শামীম বাদী হয়ে ২৯ জনকে আসামি করে কুমারখালী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে। এই মামলায় গত বুধবার হাইকোর্ট থেকে ২৬ জন জামিনে মুক্তি পেয়ে শনিবার সকালে বাড়িতে ফিরলে প্রতিপক্ষের লোকজন হামলা করে।

হামলায় জামিনে মুক্তিপ্রাপ্ত হত্যা মামলার ৫নং আসামি আসলাম ও প্রতিপক্ষের মামুন শেখ, লিটন ও আবুল কাশেম নামের তিনজন গুরুতর আহত অবস্থায় কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশংকাজনক।

এ বিষয়ে হত্যা মামলার ৫নং আসামি আসলাম শেখের ভাতিজা মাসুদ রানা দাবি করেন, হত্যা মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে কুমারখালী থানার ওসির সাথে কথা বলে তারা শনিবার ভোর ৫টার দিকে বাড়িতে আসেন।

সকাল ৭টার দিকে প্রতিপক্ষের মামুন, হানিফ, আরিফ ও মজিসহ প্রায় ৫০ জন মাথায় হেলমেট পরে ফালা সড়কিসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদের বাড়িতে এসে আক্রমণ করে। এ সময় ফালার আঘাতে তার চাচা আসলাম শেখের ভুঁড়ি বেরিয়ে গেলে তাকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশংকাজনক।

বাদীপক্ষের আহত মামুন শেখ দাবি করেন, তাদের প্রতিপক্ষের লোকজন হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে এলাকায় এসে শুক্রবার তাদের একজনকে ধাওয়া করে এবং ভ্যান কেড়ে নেয়। শনিবার সকালে তিনি তার মামা বাড়িতে গেলে রেজাউল বিশ্বাস ও আজিজসহ বেশ কয়েকজন তার উপর চড়াও হয়। এ সময় খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করতে তাদের লোকজন আসলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে তাদের তিনজন গুরুতর আহত অবস্থায় কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি আছে। দুজনের অবস্থা আশংকাজনক।

এ বিষয়ে কুমারখালী থানার ওসি কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, জামিনে মুক্তি পেয়ে হত্যা মামলার আসামিরা বাড়িতে ফিরলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

সংঘর্ষে উভয়পক্ষের ৪ জন আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। ২০/০৮/২০২২ ইং।

আরও খবর:

Sponsered content