1. admin@deshsangbad24.com : admin :
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৪৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
ভেড়ামারায় জাসদ ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা মিরপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় পাখি ভ্যানচালক নিহত কুষ্টিয়ায় ইসলামী এজেন্ট ব্যাংকের ভল্ট ভেঙে টাকা চুরি কুষ্টিয়ার খোকসায় পানিতে ডুবে শিশুর দুই মৃত্যু কুষ্টিয়ায় পুকুরে গোসল করতে গিয়ে প্রাণ হারালো এক স্কুল ছাত্রের ভেড়ামারার বলি হলেন রং মিস্ত্রি শাহিনের আদরের সন্তান তামিম কম্বাইন্ড হার্ভেস্টার মেশিন ব্যবহারে কমেছে উৎপাদন খরচ কুষ্টিয়ায় ব্যাংক কর্মকর্তার পুরুষাঙ্গ কর্তন মামলায় স্ত্রীর কারাদন্ড মিরপুরে ভোক্তা অধিকারের অভিযান-দুই দোকানীকে জরিমানা জয়পুরহাটে পরকীয়া প্রেমের জেরে স্বামীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা ,স্ত্রী ও প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড

সাতক্ষীরায় জলবায়ু পদযাত্রা সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত : সোমবার, ৮ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৯৪ জন দেখেছে

বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলন কপ-২৬ এর নেতৃবৃন্দের কাছে বিভিন্ন দাবি-দাওয়া জানিয়ে সাতক্ষীরায় ‘জলবায়ু পদযাত্রা’ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পদযাত্রা ও সামবেশে বক্তারা বলেছেন, উন্নত বিশ্ব প্রতিনিয়ত কার্বন নি:সরণ করছে। ধনী ও শিল্পোন্নত দেশগুলোর বিলাসী জীবনযাপনের খেসারত বাংলাদেশের মতো দরিদ্র ও অনুুন্নত দেশগুলোকে দিতে হচ্ছে। জলবায়ু অভিঘাতের ফলে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের জেলা সাতক্ষীরার দুটি উপজেলা আশাশুনি ও শ্যামনগরের মানুষ প্রতিনিয়ত জলবায়ু উদ্বাস্তু হয়ে বাস্তুচ্যুত হচ্ছে।

এসব জলবায়ু উদ্বাস্তু মানুষ পরিবার-পরিজন নিয়ে দেশের বিভিন্ন এলাকায় যেয়ে বস্তিতে মানবেতর জীবনযাপন করছে। লবণাক্ততা বৃদ্ধির ফলে মানুষের রোগব্যাধি বাড়ছে। ফসলের জমি বিরান হয়ে যাচ্ছে। ধনী দেশগুলোর অতিক্তি কার্বণ নি:সরণের জন্য ক্ষতিগ্রস্ত দেশের মানুষকে ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য করতে হবে।

সোমবার ৮ নভেম্বর, ২০২১ সকাল ১০টায় সাতক্ষীরা নিউ মার্কেট মোড় (শহীদ আলাউদ্দীন চত্বর) থেকে জলবায়ু পদযাত্রা শেষে শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে মুক্তমঞ্চে অনুষ্ঠিত সমাবেশে নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন।

স্বদেশ, উপকূলীয় জীবনযাত্রা ও পরবিশে কর্মজোট (ক্লিন) Coastal Livelihood and Environmental Action Network (CLEAN) ও এশিয়ান পপিলস্ মুভমন্টে অন ডটে অ্যান্ড ডভেলেপমন্টে Asian People’s Movement on Debt and Development (APMDD) যৌথভাবে এ কর্মসূচির আয়োজন করে। শহরে জলবায়ু পদযাত্রা শেষে সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক কর্মসূচি পরিবেশিত হয়।

জলবায়ু পদযাত্রা শেষে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, শিক্ষাবিদ ও নাগরিক ব্যক্তিত্ব আবদুল হামিদ, জেলা নাগরিক কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক আনিসুর রহিম, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ জাসদ, জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ইদ্রিস আলী, ভূমিহীন নেতা ও জেলা নাগরিক কমিটির যুগ্ম সদস্য সচিব আলী নুর খান বাবুল, উদীচীর জেলা কমিটির সভাপতি শেখ সিদ্দিকুর রহমান, ক্রিস্টেন্টের নির্বাহী পরিচালক আবু জাফর সিদ্দিকী, উন্নয়নকর্মী ফারুক রহমান, ক্লাইমেট এক্টিভিস্ট এস এম শাহিন বিল্লাহ, ব্যবসায়ি মিজানুর রহমান, সাংস্কৃতিককর্মী একোব্বার হোসেন, শিক্ষার্থী শিখা প্রমুখ। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা ও সমন্বয় করেন মানবাধিকারকর্মী ও স্বদেশ’র নির্বাহী পরিচালক মাধব চন্দ্র দত্ত।

বক্তারা বলেন, গত ৩১ অক্টোবর শুরু হয়ে আগামী ১২ নভেম্বর পর্যন্ত স্কটল্যান্ডরে রাজধানী গ্লাসগোতে জাতসিংঘ জলবায়ু সম্মলেন অনুষ্ঠতি হচ্ছে। এ সম্মলেনে বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী চারটি মূল দাবি তুলে ধরেছেন।

দাবগিুলো হলো: (১) কার্বন নির্গমন শূন্যে নামিয়ে আনার জন্য উচ্চাভিলাষী পরিকল্পানা গ্রহণ করা (২) উন্নত দেশগুলোর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী প্রতি বছর ১০০ বিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দেওয়া (৩) জলবায়ু-ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোকে নবায়নযোগ্য ও পরচ্ছিন্ন জ্বালানির প্রযুক্তি দিয়ে সহায়তা করা এবং (৪) জলবায়ু উদ্বাস্তু এবং জলবায়ু পরর্বিতনের কারণে ক্ষতি ও ধ্বংসের দায়-দায়ত্বি গ্রহণ করা।

জলবায়ু পরর্বিতনরে বিরূপ প্রভাবের ফলে সারা পৃথীবি জুড়ে দুর্যোগের সংখ্যা ও ভয়াবহতা দুটোই বেড়ে গছে। আর এতে ক্ষতির শিকার হচ্ছে বাংলাদেশের মতো উপকূলীয় ও উন্নয়নশীল দেশগুলো। গত ২০ বছরে যেসব দেশে জলবায়ু দুর্যোগে আক্রান্ত প্রথম পাঁচটি দশেরে মধ্যে বাংলাদেশ একট। জলবায়ুর বিরূপ প্রভাবে দেশের উপকূলীয় ও উত্তরাঞ্চলে লবণাক্ততা, খরা, বন্যা, অনিয়মিত বৃষ্টিপাত, নদী ভাঙন, র্ঘূণঝিড় ও জলোচ্ছ্বাসরে কারণে জীবিকা হারিয়ে প্রতি বছর পাঁচ লাখরেও বেশি মানুষ জলবায়ু-উদ্বাস্তুতে পরিণত হচ্ছ।

জলবায়ু পরর্বিতনরে মূল কারণ বাতাসে অতিরিক্ত কার্বন  নির্গমন ও তার ফলে পৃথীবির তাপমাত্রা বৃদ্ধ। পৃথীবির তাপমাত্রা বৃদ্ধি ১.৫ সেলসিয়াসের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখার উদ্দেশ্য ২০১৫ সালে প্যারিসে জাতসিংঘরে সদস্য দেশগুলো চুক্তি স্বাক্ষর কর। প্যারিস চুক্তির উদ্দেশ্য পূরণ করতে হলে ২০৫০ সালরে মধ্যে কার্বন নির্গমন শূন্যে নামিয়ে আনতে হব। পৃথীবির অধিকাংশ দেশে এ লক্ষ্য পূরণের প্রতিশ্রুতি দিলেও চীন, রাশিয়া, ব্রাজিল ও ভারতরে মতো বড় নির্গমনকারী দেশ কোনো প্রতিশ্রুতি দেয়নি। ফলে মানবজাতি রক্ষার উদ্যোগ অনকেটাই ব্যর্থ  হবে। মানবজাতির বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ার জন্য এসব দেশের লজ্জা পাওয়া উচিৎ।

স্বদেশ-এর নির্বাহী পরিচালক মাধব চন্দ্র দত্ত বলনে, বাতাসে কার্বন নির্গমনের ৭২ শতাংশই আসে জ্বালানি খাত থকে। কার্বন নির্গমন কমানোর জন্য কয়লা, গ্যাস ও জ্বালানি তেলখাতে উন্নত দেশগুলোর বিনিয়োগ বন্ধ করতে হব।

ইতোমধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যসহ ৪০টি দেশ জীবাশ্ম জ্বালানিতে বিনিয়োগ করবে না বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। জার্মান, জাপান, চীন, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষণি কোরিয়া, বেলজিয়ামের মতো বড় বিনিয়োগকারী দেশগুলো জীবাশ্ম জ্বালানিতে বিনিয়োগ বন্ধ করার কোনো প্রতিশ্রুতি দেয়নি। এসব দেশের অবলিম্বে জীবাশ্ম জ্বালানিতে বিনিয়োগ বন্ধ করতে হব।

বক্তারা অবিলম্বে কয়লাসহ জীবাশ্ম জ্বালানিতে বিনিয়োগ বন্ধ করা, প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী জলবায়ু-বিপদাপন্নদের জন্য পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ নিশ্চিত করা, নবায়নযোগ্য জ্বালানি নিশ্চিত করার জন্য বাংলাদশেকে সহায়তা করা, ২০৫০ সালরে মধ্যে র্কাবন নর্গিমন শূন্যে নামিয়ে আনার জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করা এবং টকেসই উন্নয়ন নিশ্চিত করার দাবি জানান।

সংবাদ টি শেয়ার করে সহযোগীতা করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Tags

এবার প্রাথমিক ডিম-দুধ-মৌসুমী ফল খাওয়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে কংগ্রেসে ভাঙন: মমতা ঘোলা জলে 'বড় মাছ' ধরার চেষ্টা করছেন কাবুলের মসজিদ বিস্ফোরণে দুইজন নিহত কুরআনের মানুষের অধিকার কি? কোল্ড স্টোরেজ মালিকরা প্রতি কেজি আলুর ভর্তুকি চান ৯টাকা খুলনায় পেঁয়াজের দাম প্রতি কেজিতে ১০ টাকা বেড়েছে জাপানিদের বাড়ির বাইরে ভ্রমণের জন্য লাগবে টিকা সনদ জিমেইল সুরক্ষিত রাখতে যা করতে হবে ঝাল বেড়েছে সবুজ মরিচে ২৪০ টাকা কেজি! তিনজন আহত দলে ফেরার পর সাকিব বোলিং এবং ফিল্ডিংয়ে শক্তিশালী ছিলেন নির্বাচন কমিশন রাজ্য সরকারকে পুজো কমিটিগুলিকে ৫০ হাজার টাকা দেওয়ার অনুমতি পাকিস্তানি তালেবানদের শান্ত করার জন্য ইমরানের উদ্যোগ পিকআপ সিটের পিছনে ৩৮ কেজি গাঁজা পাওয়া গেছে বিএনপি চোখ হারানো নেতা শাহজাহানের সঙ্গে ফখরুলের সাক্ষাৎ বিবর্ণ মোস্তাফিজ; চেন্নাইয়ের ১৮৯ রতুরাজের সেঞ্চুরি ব্রিটিশ আমেরিকান তামাক: গবেষণা ক্ষতিকর তামাকের প্রচারের দিকে পরিচালিত করে ভিপি নূরকে 'অনৈতিক' বলার কোন প্রমাণ নেই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে করোনা ইউনিটে আরও ৮ জনের মৃত্যু মাঝ আকাশে বিমান-হেলিকপ্টার সংঘর্ষে দুইজন নিহত মেয়র আতিক উচ্চশিক্ষায় গবেষণার গুরুত্বের প্রতি আহ্বান জানান যাত্রাবাড়ীতে বর্জ্য ব্যবসার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সড়ক অবরোধ রাজধানীর একটি বাড়ির ছাদ থেকে পড়ে এক কিশোরের মৃত্যু রাজধানীর কুড়িলে ট্রেনের ধাক্কায় একজন নিহত হয়েছেন রাজধানীর বনানীর কড়াইল বস্তিতে আগুন রিং আইডির সাইফুল দুই দিনের রিমান্ডে রিয়েলমি জিটি মাস্টার হল দেশের প্রথম স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮জি ৫জি প্রসেসর লিবিয়া ইউরোপে যাওয়ার পথে বাংলাদেশিসহ ৫০০ অভিবাসীকে আটক শতভাগ প্রবীণ নাগরিক ভাতার আওতায় আসবেন শ্যামনগরে সবজি বাজার সুরক্ষার দাবিতে মানববন্ধন সবাইকে বাঙালিয়ানা চর্চা পুনরুজ্জীবিত করতে হবে: ইনু সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শেখ রাসেল দিবস পালিত হয়েছে সাতক্ষীরায় র‌্যাব-৬ এর অভিযানে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত মাদক ব্যবসায়ী আটক সাতক্ষীরায় সবজি উৎপাদন কৌশল সম্পর্কে কৃষকদের প্রশিক্ষণ সাতক্ষীরার উপকূলীয় অঞ্চল প্রতাপনগরের মানুষ ভাসমান সেতু পেয়ে খুশি সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর আধুনিকায়ন বিষয়ে মতবিনিময় সাতক্ষীরার সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান বলেন; বিচার বিভাগ অন্ধকারের বিরুদ্ধে ভোরের সূর্য সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের প্রধান ফটকে কোম্পানীর সেই সাইনবোর্ড বিক্ষুব্ধ ছাত্রদের প্রতিবাদে অপসারণ সাতক্ষীরায় আ.লীগের বর্ধিত সভায় চেয়ারম্যান প্রার্থীরা তালিকা নিয়ে হট্টগোল! সাতক্ষীরায় ডিবি পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ২ সাতক্ষীরায় বিজিবি'র অভিযানে ২৫ পিস স্বর্ণের গহনা আটক সাতক্ষীরায় যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে মহান বিজয় দিবস সাতক্ষীরায় র‌্যাব-৬ এর অভিযানে সেনাবাহিনীর এক ভূয়া সদস্য আটক সাতক্ষীরায় র‌্যাবের অভিযানে বাঘের চামড়া উদ্ধার ৪০ দিন জামাতে প্রার্থনা করলে কি লাভ?
© All rights reserved © 2023 দেশ সংবাদ ২৪
প্রযুক্তি সহায়তায় রিহোস্ট বিডি